রোববার পুঁজিবাজারে আবারো চালু হচ্ছে প্রি ওপেনিং সেশন

Date: 2022-09-23 22:39:53
রোববার পুঁজিবাজারে আবারো চালু হচ্ছে প্রি ওপেনিং সেশন
আগামী রোববার পুঁজিবাজারে আবারো প্রি-ওপেনিং সেশন চালু হচ্ছে। সকাল সাড়ে ৯টায় লেনদেন শুরুর আগের ৫ মিনিট প্রি-ওপেনিং সেশন নির্ধারিত করা হয়েছে। এর আগে এ বছরের মে মাসে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) প্রি-ওপেনিং সেশন সাময়িকভাবে বাতিল করেছিল। সে সময় প্রি-ওপেনিং সেশনের জন্য ১৫ মিনিট সময় নির্ধারিত ছিল।কমিশন সূত্রে জানা গিয়েছে, দুটি কারণে এ বছরের মে মাসে প্রি-ওপেনিং সেশন বাতিল করা হয়েছিল। ডিএসইর ট্রেডিং ইঞ্জিন লেনদেনের শুরুতে অনেক বেশি কার্যাদেশের চাপ নিতে না পারার কারণেই মূলত প্রি-ওপেনিং সেশন চালু করা হয়েছিল। সে সময় ডিএসইর ট্রেডিং ইঞ্জিনের সক্ষমতা বাড়ানো হয়। এ সক্ষমতা বাড়ার বিষয়টি যাচাই করে দেখার জন্য প্রি-ওপেনিং সেশন বাতিল করা হয়েছিল। তাছাড়া পুঁজিবাজার যখন নিম্নমুখী থাকে তখন প্রি-ওপেনিং সেশন চলাকালীন অনেক বেশি শেয়ার বিক্রির কার্যাদেশ দেয়া হয়ে থাকে। যদিও পরবর্তী সময়ে এসব কার্যাদেশ বাতিল কিংবা পরিবর্তন হয়ে যায়। এতে লেনদেনের শুরুতেই পুঁজিবাজারে নেতিবাচক প্রভাব পড়তে শুরু করে। এটিও ছিল প্রি-ওপেনিং সেশন বাতিলের আরেকটি কারণ।এবার প্রি-ওপেনিং সেশন পুনরায় চালুর বিষয়ে কমিশন বলছে, সাম্প্রতিক সময়ে পুঁজিবাজারে লেনদেনের পরিমাণ অনেক বেড়েছে। এতে করে ডিএসইর ট্রেডিং ইঞ্জিনের ওপর চাপ পড়ছে। এ কারণে ডিএসইর পক্ষ থেকে প্রি-ওপেনিং সেশন আবারো চালুর জন্য কমিশনের কাছে অনুরোধ করা হয়েছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে কমিশন এটি চালুর অনুমোদন দিয়েছে। এরই মধ্যে প্রি-ওপেনিং সেশন চালুর বিষয়টি দেশের দুই স্টক এক্সচেঞ্জকে চিঠির মাধ্যমে জানানো হয়েছে।পুঁজিবাজার পরিস্থিতি: গতকাল সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে উত্থানের মধ্য লেনদেন শেষ হয়েছে পুঁজিবাজারে। এদিন দেশের দুই স্টক এক্সচেঞ্জেই সূচকে পয়েন্ট যোগ হয়েছে। তবে সূচক বাড়লেও পুঁজিবাজারে দৈনিক লেনদেনের পরিমাণ কমেছে।বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, গতকাল সকাল সাড়ে ৯টায় লেনদেন শুরুর ১ মিনিট পর থেকেই পয়েন্ট হারাতে শুরু করে ডিএসইর সার্বিক সূচক ডিএসইএক্স। এরপর আবারো ঘুরে দাঁড়ায় সূচক। বেলা ১১টা পর্যন্ত ঊর্ধ্বমূখী ছিল সূচক। শেয়ার বিক্রির চাপে এরপর আবারো পয়েন্ট হারাতে শুরু করে। দিনভর অস্থিরতা দেখা গেলেও শেষ পর্যন্ত গতকাল দিনশেষে এর আগের দিনের তুলনায় ১৩ পয়েন্ট বেড়ে ৬ হাজার ৫৬৪ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে ডিএসইএক্স। অন্য সূচকগুলোর মধ্যে ডিএসইর ব্লু-চিপ সূচক ডিএস-৩০ গতকাল ৯ পয়েন্ট কমে ২ হাজার ৩৬৬ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। শরিয়াহ সূচক ডিএসইএস গতকাল দিন শেষে সামান্য বেড়ে ১ হাজার ৪৩৭ পয়েন্টে অবস্থান করছে। গতকাল সূচকের উত্থানে সবচেয়ে বেশি ভূমিকা ছিল সি পার্ল বিচ রিসোর্ট অ্যান্ড স্পা, ইউনিক হোটেল অ্যান্ড রিসোর্টস, বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশন (বিএসসি), ওরিয়ন ফার্মাসিউটিক্যালস ও ইস্টার্ন হাউজিংয়ের শেয়ারের।ডিএসইতে গতকাল ১ হাজার ৬৬৬ কোটি টাকার সিকিউরিটিজ লেনদেন হয়েছে। যেখানে এর আগের কার্যদিবসে লেনদেন ছিল ১ হাজার ৮০৮ কোটি টাকা। গতকাল এক্সচেঞ্জটিতে লেনদেন হওয়া ৩৭৫টি কোম্পানি, মিউচুয়াল ফান্ড ও করপোরেট বন্ডের মধ্যে দিন শেষে দর বেড়েছে ১৩১টির, কমেছে ৭৮টির আর অপরিবর্তিত ছিল ১৬৬টি সিকিউরিটিজের বাজারদর।অন্যদিকে সিএসইর নির্বাচিত সূচক সিএসসিএক্স গতকাল ১৫ পয়েন্ট বেড়ে ১১ হাজার ৫৯৬ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। সিএসইর সব শেয়ারের সূচক সিএএসপিআই গতকাল ২৬ পয়েন্ট বেড়ে ১৯ হাজার ৩৪৫ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। এদিন এক্সচেঞ্জটিতে লেনদেন হওয়া ২৬১টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ৯১টির, কমেছে ৬৩টির আর অপরিবর্তিত ছিল ১০৭টির বাজারদর। গতকাল সিএসইতে ৯৯ কোটি টাকার সিকিউরিটিজ হাতবদল হয়েছে, আগের কার্যদিবসে যা ছিল ১২৬ কোটি টাকা।

Share this news